লোকমান আনছারী রাউজান প্রতিনিধি

চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলায় ২০জুন সোমবার সকালের দিকে বৃষ্টি না থাকলেও বিকাল ৩টা থেকে আবারো বৃষ্টিপাত শুরু হয় রাউজানে। একদিকে টানা বৃষ্টি অপরদিকে পার্ব্বত্যঞ্চল থেকে প্রবল বেগে ঢল নেমে রাউজানের বিভিন্ন ইউনিয়ন ও পৌরসভার কিছু কিছু বাড়ি ঘর ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রাস্তাঘাট হাঁটু পানিতে তলিয়ে গেছে। উপজেলা ও পৌর এলাকার বিভিন্নস্থানে ঘুরে দেখা গেছে উপজেলার পূর্বাংশের পাহাড় থেকে বর্ষার পানির ঢল প্রবল স্রোত হয়ে নামছে খাল নালা ছড়া হয়ে রাউজানের উপর দিয়ে হালদায় গিয়ে পড়ছে। পাহাড়ি স্রোতের তীব্রতায় ডাবুয়া, বেরুলিয়া, রাউজান, কাশখালীসহ বিভিন্ন খালের পাড় ভেঙ্গে উপজেলার নিচু এলাকায়বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে। এলাকা ঘুরে দেখা গেছে উপজেলার উত্তর -দক্ষিণ যোগাযোগের সবকটি রাস্তায় হাঁটু পানি গড়িয়ে পড়ায় যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। পৌর এলাকার বিভিন্ন মহল্লায় পানি প্রবেশ করেছে। এমন পরিস্থিতির মধ্যে রাউজানের সংসদ সদস্য এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী ক্ষয়ক্ষতি নিরুপনে পানি উন্নয়ন বোর্ডের সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলীকে নির্দেশ দিলে প্রকৌশলী দল ক্ষতিগ্রস্ত স্থান পরিদর্শন করেছে। এদিকে চিকদাইর, ডাবুয়া,পুর্ব গুজরা,উরকিরচর,বিনাজুরী, রাউজান সদর ইউনিয়নে কিছু কিছু ঘরবাড়ি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, পানির নিচে তলিয়ে গেছে। পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের সাপলঙ্গা,গণি হাজীর বাড়ি, ঢেউয়াপাড়া, হাজিপাড়া ও পৌরসভার ৫, ৬ নং ওয়ার্ডের দায়ের ঘাটা, বণিক পাড়া, কাজী পাড়া,জলদাশ পাড়া সহ কিছু বসত ঘরে পানি প্রবেশ করে। রাউজান পৌরসভার মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ বলেছেন পাহাড়ি ঢলে ক্ষতিগ্রস্ত পৌর এলাকার কিছু কিছু রাস্তাঘাট জরুরী ভাবে সংষ্কার করে দেয়া হচ্ছে। কি পরিমান রাস্তাঘাট ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তা নিরুপন করছে পানি উন্নয়ন বোর্ডের একটি প্রকৌশলী দল । তারা পাহাড়ি ঢলে ক্ষতিগ্রস্ত খালের পাড় পরিদর্শন করে গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x