আজ বৃহস্পতিবার,১৬ জুন,২০২২ খ্রি. তারিখে মুজিব শতবর্ষ এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান’র ১০২তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত বর্ষকালব্যপী জুম ওয়েবিনারে এক বিশেষ সেমিনারের ৩১৬তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়। জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন শিক্ষা ক্যাডারের সহযোগী অধ্যাপক ও গবেষক আবু সালেক খান এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, নীলফামারীর জলঢাকা থেকে পিএইচডি গবেষক ফাতেমা-তুজ-জোহরা, ও রাজশাহী থেকে ডা. মাহবুবুল হক মনোয়ার।
সেমিনারে গেস্ট অব অনার হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক জেবউননেসা এবং মুখ্য আলোচক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়,গোপালগঞ্জ এর বঙ্গবন্ধু ইনস্টিটিউট অব লিবারেশন ওয়ার এন্ড বাংলাদেশ স্টাডিজ এর অধীনে পিএইচডি গবেষণারত প্রশান্ত কুমার সরকার।
সভাপতির বক্তৃতায় ড.কলিমউল্লাহ বলেন, বাঙালি জাতি-রাষ্ট্রের স্রষ্টা, ইতিহাসের মহানায়ক আমাদের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান।

অধ্যাপক জেবউননেসা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠপুত্র শেখ কামালের বহুমাত্রিক গুণাবলীর ওপর আলোকপাত করে বলেন,পাকিস্তানের প্রেতাত্মারা পদ্মা সেতুসহ মেগাপ্রকল্প সমূহের সফল বাস্তবায়নে ঈর্ষান্বিত। তারা নাশকতার চেষ্টায় লিপ্ত। তাই মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তিকে সব সময় ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে।
গবেষক আবু সালেক খান বলেন,সত্যিকার অর্থে আদর্শ ধারণ করলে বিজয় অবশ্যম্ভাবী। যা মুক্তিযুদ্ধে সমগ্র বাঙালি ঐক্যবদ্ধ ভাবে দেখিয়ে দিয়েছে। তাই মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুন্নত রাখতে হবে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে।
প্রশান্ত কুমার সরকার বলেন, বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য সন্তান সেনা কর্মকর্তা শেখ কামালের বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র ও প্রপাগান্ডা ছড়ানোর মূল উদ্দেশ্যই ছিল মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে কলঙ্কিত ও প্রশ্নবিদ্ধ করা।

সভায় বক্তারা বলেন, মুক্তিযুদ্ধবিরোধী পাকিস্তানি প্রেতাত্মারা এখনো ষড়যন্ত্রের জাল বুনে যাচ্ছে। এই অপশক্তির বিরুদ্ধে সব সময় সজাগ থাকতে হবে এবং ঐক্যবদ্ধভাবে যে কোন ষড়যন্ত্র মোকাবেলার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে।
সেমিনারটি সঞ্চালনা করেন রয়েল ইউনিভার্সিটি অব ঢাকা’র সহযোগী অধ্যাপক,বিভাগীয় প্রধান ও ডেইলি প্রেসওয়াচ সম্পাদক দিপু সিদ্দিকী।
সেমিনারে অন্যান্যদের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত প্রকৌশলী শাফিউল বাশার, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মোসাম্মৎ সুবর্ণা আক্তার ও মাসুম আব্দুল্লাহ, বি-বাড়িয়া থেকে আইডিয়াল কিডস কেয়ার স্কুলের ভাইস প্রিন্সিপ্যাল বায়েজিদা ফারজানা ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x