দেশ রক্ষার জন্য ইউক্রেনের আরও সেনা পাঠাতে যাচ্ছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। এ জন্য রিজার্ভে থাকা আংশিক সেনা সদস্যসের এক হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

বুধবার( ২১ সেপ্টেম্বর) টেলিভিশনে দেওয়া এক ভাষণে পুতিন এমন নির্দেশ দেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর প্রথমবারের মতো এই মস্কোর পক্ষ থেকে এমন নির্দেশ দেওয়া হলো।
পুতিন বলেন, যদি আমাদের দেশের আঞ্চলিক অখণ্ডতা হুমকির মুখে পড়ে তাহলে আমরা আমাদের জনগণকে রক্ষা করার জন্য সমস্ত শক্তি ব্যবহার করবো। এটি ভয় দেখানো নয়।

রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী জানিয়েছেন, রিজার্ভে থাকা সেনাদের থেকে তিন লাখ সেনাকে একত্রিত করা হবে এবং তাদেরকে ইউক্রেনে পাঠানো হবে।

পুতিন এমন সময় সেনা বাড়ানোর ঘোষণা দিলেন যখন ইউক্রেনের খারকিভ অঞ্চলে বেশ কিছু অঞ্চলের দখল হারিয়েছে রাশিয়া।

পশ্চিমারা ইউক্রেনে শান্তি চায় না উল্লেখ করে পুতিন বলেন, রিজার্ভে থাকা ২০ লাখ সেনার থেকে আংশিক সদস্যদের রাশিয়া ও এর আঞ্চলিক অখণ্ডতা রক্ষায় নিয়োজিত করা হবে।

এদিকে পুতিনের এমন ঘোষণা ইউক্রেন যুদ্ধ আরও তীব্র করবে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন ব্রিটিশ পরররাষ্ট্রমন্ত্রী জিলিয়ান কিগান।

পুতিনের এই মন্তব্যের পরই বিশ্বে রুশ মুদ্রা রুবলের দাম কমে গেছে এবং তেলের দামও বেড়ে গেছে।

সূত্র: এনডিটিভি

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x