হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিভিন্ন দেশের বিপুল পরিমাণ বিদেশি মূদ্রা ও ডলারসহ মো. ইয়াছিন মিয়া নামে এক যাত্রী আটক করা হয়েছেন। তিনি ঢাকা থেকে শাহজাদগামী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে ওঠার সময় আটক হন। ইয়াছিন মিয়ার বাড়ি রাজধানীর লালবাগ এলাকায়।

রোববার (৫ জুন) রাতে তাকে আটক করে কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তর। এ সময় তার কাছ থেকে বিভিন্ন দেশের ৩৪ লাখ ৯৮ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়। ‌‌

কাস্টমস গোয়েন্দা সূত্র জানায়, ঢাকা থেকে সারজাহগামী বিমান বাংলাদেশ এয়ার লাইনসের ফ্লাইট নং বিজি ৩৫১ এ করে একজন যাত্রী বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা পাচার করছে, এই তথ্যের ভিত্তিতে কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতররের একটি দল আন্তর্জাতিক বহির্গমণ লাউঞ্জে ৫নং গেটে অবস্থান নেয়। রাত নয়টার দিকে সন্দেহভাজন যাত্রী ইমিগ্রেশন সম্পন্ন করে বিমানে উঠার প্রস্তুতি নিলে কাস্টমস গোয়েন্দা কর্মকর্তারা ৫নং বোর্ডিং ব্রিজের কাছ থেকে অভিযুক্ত ইয়াছিন মিয়াকে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রাসহ আটক করে।

তার কাছ থেকে উদ্ধারকৃত বৈদেশিক মুদ্রার মধ্যে গ্রেট ব্রিটেন পাউন্ড ১৬৫০, বাহরাইন দিনার ২০০০, মার্কিন ডলার ৪০০, ওমান রিয়াল ৬৩০০, সৌদি রিয়াল ৪০০০০, কুয়েতি দিনার ১০০, এমিরেটস দিরহাম ৩৩৭৫ এবং বাংলাদেশি টাকা ৫৯৬৪০, বাংলাদেশি টাকায় মোট মূল্যমান দাঁড়ায় ৩৪ লাখ ৯৮ হাজার দুই টাকা।

কাস্টমস গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের উপপরিচালক আহমেদুর রেজা চৌধুরী গণমাধ্যমকে জানান, ওই যাত্রী নিয়মিত বৈদেশিক মুদ্রা পাচারের বিষয়টি স্বীকার করেছেন। তার সাথে ইউনাইটেড আরব আমিরাতের রেসিডেন্ট আইডেন্টিটি কার্ড পাওয়া যায়। তিনি মাসে ৪/৫ বার দুবাই-বাংলাদেশ যাতায়াত করেন। এ ব্যাপারে বিমানবন্দর থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x