সৌদি ফার্মগুলো এখন অনলাইনেই গৃহকর্মী স্থানান্তরের প্রক্রিয়া শুরু করতে পারবে। গৃহকর্মীদের বিভিন্ন কোম্পানি এবং স্থাপনায় স্থানান্তরের কাজ এখন অনলাইনেই করা যাচ্ছে। সৌদি সরকারের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে সৌদি গেজেট।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সৌদি মানব সম্পদ এবং সামাজিক উন্নয়ন বিভাগ সম্প্রতি ই-সেবা এটি অন্তর্ভুক্ত করেছে। এটির জন্য কিওয়া প্লাটফর্ম ব্যবহারিত হবে। এর আগে কর্মী স্থানান্তরের ক্ষেত্রে স্বশরীরে এমএইচআরএসডি দপ্তরে উপস্থিত থাকতে হতো।

তবে এ প্রক্রিয়ায় কোন প্রতিষ্ঠানের কর্মীকে বাসাবাড়িতে কাজের জন্য স্থানান্তর করা যাবে না।

স্থানান্তরের ক্ষেত্রে প্রথমে কিওয়া প্লাটফর্মে নতুন নিয়োগকর্তাকে কর্মীর কাজের বিবরণী প্রকাশ করে আবেদন করতে হবে। এরপর একটি বার্তা কর্মীর মুঠোফোনে পাঠানো হবে এই মর্মে যে তিনি ওখানে কাজ করতে ইচ্ছুক কিনা। কর্মীকে ১০ দিনের মধ্যে মতামত জানাতে হবে।

কর্মী উক্ত কর্মক্ষত্রে যেতে চাইলে কর্মীর বর্তমান নিয়োগকর্তার সাথে যোগাযোগ করা হবে। তিনি কর্মীকে ছাড়তে চান কিনা এ ব্যাপারে কথা বলা হবে।

তবে এখানে কিছু শর্ত আছে যেমন, কর্মীকে সৌদি কিংডমে কমপক্ষে ১ বছর কাজ করতে হবে। যদি ১ বছর কাজ করার পর ইকামা আবেদনপত্র আবার নবায়ন করা হয় তাহলে তিনি এটি করতে পারবেন না।

মন্ত্রণালয় কিওয়া প্লাটফর্মের মাধ্যমে সকল প্রবাসী কর্মী নিয়োগ দেয়া স্বংস্থাকে এক জায়গায় আনতে চায়। তাই ভিন্ন উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x