24 November, 2020
শিরোনাম

ট্রাম্প ক্ষমতা না ছাড়লে কী হবে?

 09 Nov, 2020   55 বার দেখা হয়েছে

 নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রিন্ট

যুক্তরাষ্ট্রের সংবিধান অনুযায়ী প্রেসিডেন্টের নতুন মেয়াদ শুরু হবে জানুয়ারি মাসের ২০ তারিখে দুপুর বারোটায়। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রয়োজনীয় ইলেকটোরাল ভোটে জয় নিশ্চিত করেছেন জো বাইডেন। আর প্রেসিডেন্ট ডেনাল্ড ট্রাম্প ভোট চুরির অভিযোগ তুলে দাবি করেছেন, নির্বাচনে তিনিই জিতেছেন। তাই তিনি ক্ষমতা ছাড়বেন না এবং বিচার পেতে আইনি লড়াইয়ে নামবেন। বিবিসি।

ক্ষমতা গ্রহণের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয় রাজধানী ওয়াশিংটনে জাঁকজমকপূর্ণ একটি 'অভিষেক' অনুষ্ঠান দিয়ে। সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি প্রেসিডেন্ট এবং ভাইস প্রেসিডেন্টকে শপথ পাঠ করান। তিনি যদি শেষ পর্যন্ত এই ফল না মানেন তবে কী হবে—এখন সেই প্রশ্নই উঠছে।

গত নির্বাচনে বিজয়ের পর ২০১৭ সালের ২০ জানুয়ারি যখন ডোনাল্ড ট্রাম্প মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেন, তখন সেই অনুষ্ঠানে জো বাইডেন উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু বাইডেনের অভিষেকে ট্রাম্পের উপস্থিত থাকার বিষয়টি এখনো কষ্টকল্পনা। এমনকি ট্রাম্প নির্বাচনের ফল মেনে নিচ্ছেন—সে দৃশ্যটিও এখনো ঠিক স্পষ্ট নয়।

যুক্তরাষ্ট্রের আইন অনুযায়ী ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্ট যদি নির্বাচনে পরাজিত হন এবং সেই ফল যদি নির্বাচন কর্তৃপক্ষ আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করে বিজয়ী নিশ্চিত করে, তবে পরাজয় স্বীকার করা বা না করায় কিছু এসে যায় না। নির্বাচনের পর হেরে যাওয়া প্রার্থীর পরাজয় স্বীকার করে বিজয়ীকে অভিনন্দন জানানো একটি আনুষ্ঠানিকতা মাত্র। এটা রাজনৈতিক সৌজন্য ছাড়া আর কিছু নয়। আইনে পরাজয় স্বীকারের বাধ্যবাধকতা নেই।

এ ধরনের ঘটনা অবশ্য যুক্তরাষ্ট্রের আধুনিক ইতিহাসে নেই। কিন্তু তারপরও ডোনাল্ড ট্রাম্প যদি এমন কিছু করেন, তবে কোনো সমস্যা নেই। ক্ষমতা হস্তান্তর বিষয়ক কাঠামোটি নিজের মতোই কাজ করবে। সে ক্ষেত্রে ট্রাম্প কী করলেন, না করলেন, তাতে কোনো ভ্রুক্ষেপ থাকবে না কারও।

কিন্তু নির্বাচন কমিশন বাইডেনকে আনুষ্ঠানিকভাবে বিজয়ী ঘোষণা করলে এবং ২০ জানুয়ারি শপথ অনুষ্ঠান হয়ে গেলে দেশের সামরিক বাহিনী এবং বিচার বিভাগসহ প্রশাসনের নিয়ন্ত্রণ তার হাতে চলে যাবে। তখন তিনি চাইলে ট্রাম্পকে ওভাল অফিস থেকে বের করে দেওয়ার নির্দেশ দিতে পারেন।

সম্পর্কিত খবর
সব খবর
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | বাংলা৫২নিউজ.কম
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি এবং অপরাধ