03 December, 2020
শিরোনাম

কাউন্সিলর পদে ‘টি বয় ফালতু’র চমক

 14 Nov, 2020   76 বার দেখা হয়েছে

 নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রিন্ট

মো. সোবারেক হোসেন ফালতু। বাড়ি কুষ্টিয়াতে। প্রকৃত নাম সোবারেক হোসেন হলেও সবাই তাকে ‘টি বয় ফালতু’ নামে ডাকেন। অন্যেকর দোকানে পানি টানা, দোকান পরিষ্কারের কাজ করেন তিনি। তবে কুষ্টিয়া পৌর নির্বাচনে কাউন্সির পদে প্রার্থী হয়ে চমকে দিয়েছেন এলাকাবাসীকে।

ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত হবে পৌর নির্বাচন। ইতিমধ্যে নির্বাচন উপলক্ষে প্রার্থীরা মাঠে নেমেছেন। মাঠে নেমেছেন সোবারেক হোসেনও। তবে তার সঙ্গে অন্যঅ সব প্রার্থীর মতো সমর্থকদের ভিড় নেই। তিনি একা একা যাচ্ছেন ভোটারদের কাছে। চাচ্ছেন ভোট।

সোবারেক হোসেনের বাড়ি কুষ্টিয়ার কালিসংকরপুরে। সোবারেক হোসেন নিজেই শহরের বিভিন্ন স্থানে নির্বাচনী প্রচারণার ব্যানার-পোস্টার লাগিয়েছেন। এ নিয়ে ফেসবুকে চলছে নানা আলোচনা-সমালোচনা।

তবে অনেকেই বলছেন, যারা নির্বাচনে প্রতিশ্রুতি দিয়ে জনগণের সেবা না করে নিজেদের স্বার্থ দেখে তাদের চেয়ে ফালতু ভালো। তাই কাউন্সিলর হিসেবে আমাদের প্রতিনিধি করে পৌরসভায় পাঠাতে চাই তাকে।

পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডবাসীরা বলছেন, ভোটের সময় হলেই আমাদের দ্বারে দ্বারে ছুটে আসেন নতুন নতুন নেতারা। অথচ সারা বছর তাদের খোঁজ থাকে না।

অনেক তো দেখলাম। কেউ কথা দিয়ে কথা রাখেনি। তাই এবার নকলের ভিড়ে আসলজনকে আমরা বেছে নেবো। ফালতু মাঠের মানুষ। তাকেই আমরা চাই।

এ বিষয়ে সোবারেক হোসেন বলেন, ‘মানুষের দোকানে পানি টানা, দোকান ঝাড়ু দেওয়া আমার কাজ। আমার কোনো চাওয়া-পাওয়া নেই। আমি এখনও মানুষের সেবা করছি।

নির্বাচনে জিতলেও সেবা করে যাবো। আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন।’

নাগরিক কমিটির কুষ্টিয়া জেলা শাখার সভাপতি রফিকুল আলম টুকু বলেন, ‘নির্বাচনে প্রার্থী হওয়াটা একজন নাগরিকের গণতান্ত্রিক অধিকার। কে বড় কে ছোট এটি মুখ্য নয়।

সম্পর্কিত খবর
সব খবর
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | বাংলা৫২নিউজ.কম
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি এবং অপরাধ