বুধবার,১৭, আগস্ট,২০২২ খ্রি. জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে জানিপপ কর্তৃক আয়োজিত জুম ওয়েবিনারে এক বিশেষ সেমিনারের ৩৭৯তম পর্ব অনুষ্ঠিত হয়।
জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ড.মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন ইউএন ডিজএ্যাবিলিটি রাইটস চ্যাম্পিয়ন ও অনারারি প্রফেসর আবদুস সাত্তার দুলাল এবং গেস্ট অব অনার হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন রংপুর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আর্জিনা খানম ও নেপাল থেকে সংযুক্ত ছিলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের লোক প্রশাসন বিভাগের সাবেক চেয়ারপারসন অধ্যাপক ড. জেবউননেসা।
সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন, ফারইস্ট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ইংরেজি বিভাগের ফ্যাকাল্টি কাজী ফারজানা ইয়াসমিন , নীলফামারীর জলঢাকা থেকে পিএইচডি গবেষক ফাতেমা তুজ জোহরা, পঞ্চগড় থেকে খাদেমুল ইসলাম, লিও জান্নাতুল ফেরদৌস তিথি
এবং মুখ্য আলোচক হিসেবে সংযুক্ত ছিলেন গোপালগঞ্জস্থ বঙ্গবন্ধু বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু ইনস্টিটিউট অব লিবারেশন ওয়ার এন্ড বাংলাদেশ স্টাডিজ এর অধীনে পিএইচডি গবেষণারত প্রশান্ত কুমার সরকার।

সভাপতির বক্তৃতায় ড.কলিমউল্লাহ বলেন,জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান ছিলেন স্বর্গীয় আলোর দিশারী। তিনি তাঁর ঐন্দ্রজালিক ক্ষমতা দিয়ে পৃথিবীর বুকে এঁকে দিয়েছিলেন বাংলাদেশ নামক একটি মানচিত্র ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আব্দুস সাত্তার দুলাল বলেন, সত্যকে মিথ্যা দিয়ে কিংবা পেশি শক্তি দিয়ে সাময়িকভাবে দমিয়ে রাখলেও দীর্ঘমেয়াদী এর পরিণাম হয় ভয়াবহ। রাজনীতিবিদরা এ বিষয়টি যতশীঘ্র অনুধাবন করবেন ততই জাতির জন্য মঙ্গল।
ড.জেবউননেসা, বৈশ্বিক সংকটকে বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে বিবেচনায় নিয়ে আলোচনা সমালোচনা করতে হবে। একটি মহল বৈশ্বিক সংকট নিয়ে ধোঁয়াশা সৃষ্টি করছে এবং সুপরিকল্পিতভাবে দেশের স্মৃতিশীলতা বিনষ্টের পাঁয়তারা করছে। দেশপ্রেমিক এবং বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিকদেরকে এই বিষয়টি গুরুত্বসহকারে বিবেচনা করতে হবে এবং মিথ্যার বিপরীতে সত্যকে নিয়ে মোকাবেলা করতে হবে। তিনি আরো বলেন, আমাদেরকে আদর্শিক ও নৈতিক মূল্যবোধে উজ্জীবিত থাকতে হবে।
প্রশান্ত কুমার সরকার বলেন, বঙ্গবন্ধুর বিরুদ্ধে পরিকল্পিতভাবে মিথ্যা অপবাদ রটানো হয়েছিল। সেই প্রক্রিয়া আজও বিদ্যমান। জাতিকে ইতিহাস সচেতন হতে হবে।
আর্জিনা খানম বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নের জন্য নতুন প্রজন্মকে উৎসাহ জোগাতে হবে।
ফারজানা ইয়াসমিন বলেন, আদর্শ এবং নীতি বর্জিত রাজনীতি দিয়ে জনকল্যাণ হয় না।
ফাতেমা তুজ জোহরা বলেন, দেশ থেকে সমূলে দুর্নীতির শিকড় উপড়ে ফেলতে হবে।
খাদেমুল ইসলাম বলেন,বঙ্গবন্ধু চর্চা অব্যাহত রাখতে হবে। নতুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উদ্বুদ্ধ করতে হবে।

সেমিনারটি সঞ্চালনা করেন রয়েল ইউনিভার্সিটি অব ঢাকা’র সহযোগী অধ্যাপক,বিভাগীয় প্রধান ও ডেইলি প্রেসওয়াচ সম্পাদক দিপু সিদ্দিকী। সেমিনারে অন্যান্যদের মধ্যে সংযুক্ত ছিলেন,ইন্টারন্যাশনাল রবীন্দ্র রিসার্চ ইনস্টিটিউট এর পরিচালক ও সহযোগী অধ্যাপক ফারহানা আকতার, রাজশাহী থেকে ড.মনোয়ার,সিটিজেন বাংলা ডটকম পত্রিকার সম্পাদক মোশফিক কাজল ও সোনালী ব্যাংক কর্মকর্তা ই এ রুমা ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x