সুন্দরী প্রতিযোগিতা মানেই চড়া মেকআপে হাজির হয়ে নিজের সৌন্দর্য তুলে ধরার লড়াই। কিন্তু চিরায়ত সেই প্রথা ভেঙে প্রায় শত বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কোনো মেকআপ ছাড়া প্রতিদ্বন্দ্বি সেরা সুন্দরীর মুকুট জয়ের লড়াই করছেন। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন শুক্রবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

মেলিসা রউফ নামে লন্ডনের কলেজছাত্রী এরই মধ্যে মিস ইংল্যান্ডের মুকুট জয়ের সর্বশেষ পর্যায়ে পৌঁছে গেছেন। গত সোমবার মিস ইংল্যান্ড প্রতিযোগিতার সেমি ফাইনালে মেকআপ ছাড়াই উৎড়ে যান তিনি। আগামী অক্টোবরে এই প্রতিযোগিতার ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে।

মেকআপ ছাড়া এই রকম একটি প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার ব্যাপারে যুক্তরাজ্যের ইনডিপেডেন্ট পত্রিকাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, এটি আমার কাছে অনেক গুরুত্বপূর্ণ। আমার মনে হয় বিভিন্ন বয়সের অনেক মেয়েরই মেকআপ করার কারণ তারা এর জন্য চাপ অনুভব করে। নিজের ত্বক নিয়ে সন্তুষ্ট থাকলে আমাদের মুখ মেকআপ দিয়ে ঢেকে দেওয়া উচিত নয়। আমাদের ত্বকের ত্রুটিগুলোই আমাদের বুঝিয়ে দেয় যে আমরা কে এবং এই ত্রুটিই প্রতিটি মানুষকে অনন্য করে তোলে।

মেলিসা জানান, তিনিও এক সময় মেকআপ করতেন। তবে প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে এই মেকআপের ঐহিত্য ত্যাগ করার সিদ্ধান্ত নেন।

তিনি বলেন, আমার কখনোই মনে হয়নি যে আমি সৌন্দর্যের মান পূরণ করেছি। আমি সম্প্রতি মেনে নিয়েছি যে আমার ত্বক সুন্দর এবং সেই কারণেই আমি কোনো মেকআপ ছাড়াই প্রতিযোগিতা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।যুগান্তর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x