বন্যাকবলিত মানুষের সহযোগিতায় নিকটস্থ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে অস্থায়ী আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহারের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)।

শনিবার মাউশির মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ নির্দেশ দেয়া হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, বন্যাকবলিত এলাকার দুর্গত জনগণের নিরাপদ আশ্রয় প্রদানের নিমিত্তে নিকটস্থ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো অস্থায়ী আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহারের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

গত পাঁচ দিন ধরে সুনামগঞ্জ, সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ, গোয়াইনঘাট, জৈন্তাপুর, কানাইঘাট জকিগঞ্জ, সিলেট সদর দক্ষিণ সুরমাসহ সবকটি এলাকা প্লাবিত হয়ে জীবনযাপন দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে। গত কয়েকদিন ধরে বিদ্যুৎহীন থাকায় সেসব এলাকার কোনো খবর পাওয়া যাচ্ছে না।

সিলেট জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, শনিবার সকাল থেকে উদ্ধার কাজের জন্য নৌবাহিনীর ৩৫ জনের একটি ডুবুরীদল কাজ শুরু করেছে। বিকেলে ৬০ জনের আরেকটি বড় দল এ কাজে যোগ দেবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

x